সর্বশেষ আপডেট : এপ্রিল ১২, ২০১৭ তারিখে ৩:৪৫ অপরাহ্ণ
আজ : ২৪শে মে, ২০১৭ ইং | ১০ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

ঢাকার রাস্তায় অ্যাপভিত্তিক ট্যাক্সিসেবা “উবার”

মেহেদী আকরাম | নভেম্বর ২৯, ২০১৬, ১:১০ অপরাহ্ণ
Domain

বিশ্বব্যাপী সাড়া জাগানো পরিবহন সেবা উবার (Uber) ২২ নভেম্বর ২০১৬ ঢাকার রাস্তায় আনুষ্ঠানিক বাংলাদেশে চালু হয়েছে। উবার টেলিকম কোম্পানি গ্রামীণফোনের সঙ্গে মিলে বাংলাদেশের জন‌্য তাদের অ‌্যাপ চালু করেছে। এ সেবার জন্য উবার এর নিজস্ব কোনো ট্যাক্সি নেই। ব্যক্তিগত গাড়ি আছে এমন যে কেউ অ‌্যাপ ডাউনলোড করে নিবন্ধনের মাধ‌্যমে উবার এর চালক হয়ে যেতে পারেন। একই অ‌্যাপ ব‌্যবহার করে সেবা পাবেন যাত্রীরা। উবার জানিয়েছে, এ পার্টনারশিপ চালক ও যাত্রীদের ভ্রমণের অভিজ্ঞতাকে নতুন রূপ দিবে। দক্ষিণ এশিয়ার ৩৩তম শহর হিসেবে ঢাকায় কার্যক্রম শুরু করল প্রতিষ্ঠানটি। ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল-এর হিসাব অনুযায়ী, বিশ্বের সবচেয়ে মূল্যবান স্টার্টআপ বা নতুন ব্যবসায় উদ্যোগ হলো উবার। প্রতিদিন গড়ে ৫০ লাখের বেশিবার উবারের ট‌্যাক্সিতে চড়া হচ্ছে। বিশ্বের ৭৪টি দেশের ৪৫০টি শহরের মানুষ বর্তমানে উবারের সেবা পাচ্ছে। মোবাইল ইন্টারনেট ও জিপিএসের মাধ্যমে উবার অ্যাপ আপনার অবস্থান নির্ণয় করবে। উবারের ভারত ও দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের প্রেসিডেন্ট অমিত জেইন বলেন, উবার খুব সাধারণ একটি লক্ষ্য নিয়ে যাত্রা শুরু করেছিল, আর তা হল প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে আমাদের শহরগুলোর যানজট ও দূষণ কমানোর পাশাপাশি যাতায়াত ব্যবস্থা আরও সহজ করে তোলা।
Uber
মোবাইল অ্যাপ নির্ভর এই সেবাটি ব্যবহার করতে চাইলে প্রথমেই মোবাইলে উবার অ্যাপ ইন্সটল করে নিতে হবে। এরপর মোবাইল নম্বর এবং ইমেইল এড্রেস ব্যবহার করে উবারে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। এরপরে উবারের অ্যাপস চালু করে সার্চ দিলেই আপনার কাছাকাছি উবারের যেসব খালি গাড়ি (ট্যাক্সি/প্রাইভেট কার) আছে সেগুলোর অবস্থান দেখাবে। উবার অ্যাপের নির্দিষ্ট বাটন ক্লিক করলেই কাছাকাছি থাকা উবার ড্রাইভারের কাছে নোটিফিকেশন যাবে এবং যে ড্রাইভার রাজি হতে আপনার তার নাম, গড়ি নম্বর ইত্যাদি দেখতে পারবেন। এরপরে সেই গাড়িচালক আপনাকে কল করে আপনার অবস্থান আরো বিস্তারিত জেনে আপনার কাছে চলে আসবে ও আপনাকে আপনার গন্তব্যে পৌঁছে দেবে। ঢাকায় সিএনজি অটোরিকশা ভাড়া ও প্রাপ্যতা নিয়ে যারা চিন্তিত, তাদের জন্য উবার হতে পারে ভাল বিকল্প। সিএনজির সাথে উবারের ট্যাক্সি/কার ভাড়ার খুব বেশি পার্থক্য থাকবেনা, বরং এখন পর্যন্ত উবার আরো সাশ্রয়ী মনে হচ্ছে।

কিভাবে ২৫০ টাকা উবার বোনাস পাবেন:
কিভাবে ৩০০ টাকা উবার বোনাস পাবেন:
উবারে রেজিস্ট্রেশন করে আমার প্রোমোশনাল কোড এন্টার করলে আপনি ২৫০ ৩০০ টাকার ফ্রি ভ্রমণ করতে পারবেন। আমার প্রোমোশনাল কোড হচ্ছে: d1pdgdvvue
প্রথমে মোবাইলে গুগল প্লে স্টোরে (https://goo.gl/VRYQXu) কিংবা মাইক্রোসফট উইন্ডোজ স্টোর অথবা অ্যাপল অ্যাপ স্টোরে(https://goo.gl/4A51fO) থেকে এপ্লিকেশনটি ইনস্টল করুন। তারপর Uber এপ্লিকেশন ওপেন করে রেজিস্টার করুন। উবারের ‌ওয়েবসাইট থেকে‌ও রেজিষ্ট্রেশন করতে পারবেন। এবার এপ্লিকেশনের মধ্যে Promotions মেন্যুতে গিয়ে Add Code বাটন চেপে আমার প্রোমো কোড d1pdgdvvue এন্টার করলে আপনি ২৫০ ৩০০ টাকা পাবেন। আপনি উবারে এই ২৫০ ৩০০ টাকার ভ্রমণ করার পর আমিও উবারে এই পরিমাণ ভ্রমণ ক্রেডিট পাবো। এই প্রোমোশনাল মেয়াদ ৯০ দিন।
নোট: এই ৩০০ টাকা আপনি ১০০ টাকা করে প্রথম ৩টি রাইডে পাবেন।

ভাড়া:
বেজ ভাড়া: ৫০ টাকা + প্রতি কিলোমিটার: ২১ টাকা + প্রতি মিনিট: ৩ টাকা

টাকা পরিশোধ:
উবারে ক্যাশ ছাড়াও কার্ডের মাধ্যমে টাকা পরিশোধ করতে পারবেন, এজন্য পেমেন্ট মেনুতে গিয়ে আপনার ক্রেডিট/ডেবিট কার্ড যুক্ত করলেই হবে।

যাত্রীর নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে প্রয়োজনীয় সকল তথ্য, যেমন- চালকের তথ্য, গাড়ির লাইসেন্স প্লেট নাম্বার ইত্যাদি আপনার কাছে আগেই পৌঁছে যাবে। এমনকি আপনার তাৎক্ষনিক অবস্থান জানতে গন্তব্যে যে অপেক্ষা করছে তার সঙ্গে আপনি যাত্রার বিস্তারিত তথ্য শেয়ার করতে পারবেন খুব সহজেই। পাশাপাশি, চালক এই মুহূর্তে ঠিক কোথায় আছে তা সাথে সাথেই জানতে পারবে। তাই নিশ্চিন্তে বাড়ি ফেরা এখন খুব সহজ!
বাংলাদেশে আমরা প্রাথমিকভাবে খুব সীমিতসংখ্যক গাড়ি নিয়ে কাজ শুরু করছি বলে শুরুর দিকে উবারের রাইডগুলো স্বাভাবিক এর চেয়ে একটু বেশী সময় নেবে।

উবার প্রণীত নীতিমালাগুলো হচ্ছে
১. গাড়ির চালক বা অন্যদের সম্পদ নষ্ট: গাড়ির মধ্যে ফোন কিংবা অন্য কোনো কিছু ভাঙচুর করা যাবে না। আর ধূমপান কিংবা মদপান—কোনো কিছুই করা যাবে না গাড়ির মধ্যে। আর কোনো কারণে যাত্রী মাতাল হলে বা বমি করলে নিষিদ্ধ হতে পারে তাদের সেবা থেকে।
২. যাত্রীদের শারীরিক ঘনিষ্ঠতা নিষিদ্ধ: যাত্রীদের একে অন্যের শরীরে স্পর্শ বা কোনো ধরনের অশালীন আচরণ গ্রাহ্য করা হবে না। উবার গাড়িতে ‘কোনো যৌনতা নয়’, এই আইন মেনে চলে। এ ক্ষেত্রে উবার কর্তৃপক্ষ ‘জিরো টলারেন্স’ নীতি নিয়ে থাকে।
৩. অশালীন ভাষায় কথাবার্তা নয়: কোনো ধরনের ব্যক্তিগত প্রশ্ন, হুমকি, আগ্রাসনমূলক ও যৌনতাবিষয়ক কথাবার্তা বলা যাবে না গাড়িচালকের সঙ্গে।
৪. যাত্রা শেষে ডাকা বা খুদে বার্তা গ্রাহ্য হবে না: যাত্রা শেষে গাড়িচালককে কোনো ধরনের কল, এসএমএস দেওয়া যাবে না।
৫. স্থানীয় আইন ভঙ্গ করা যাবে না: যাত্রার সময় গাড়ি জোরে চালাতে কিংবা স্থানীয় ট্রাফিক আইন ভাঙতে কোনো ধরনের বল প্রয়োগ করা যাবে না গাড়িচালককে। এ ছাড়া শিশু নির্যাতন এবং মানব ও মাদক পাচারের কাজে এ পরিষেবাকে ব্যবহার করা যাবে না মোটেও।
৬. যাত্রা বাতিল: যাত্রীরা যাত্রা কনফার্ম করে উবার চালককে আমন্ত্রণ জানানোর সময় হতে ৫ মিনিট পেরিয়ে যাওয়ার পর যদি ট্রিপ বাতিল করে তাহলে ৫০ টাকা ফি দিতে হবে। ৫ মিনিটের অাগেই বাতিল করা হলে ফি দিতে হবে না। এই ফি’র টাকা ওই যাত্রীর পরবর্তী যাত্রার সঙ্গে সমন্বয় করে কেটে নেবে উবার।

১টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন