সর্বশেষ আপডেট : আগস্ট ২২, ২০১৭ তারিখে ১১:৪০ পূর্বাহ্ণ
আজ : ২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ইং | ৭ই আশ্বিন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

অহমিকা

admin | মে ৭, ২০০৮, ২:০৪ পূর্বাহ্ণ
Domain

নিশাকর সবিতারে ডাকিয়া কই,
“তোর দিকে কেহ কভু নাহি ফিরে চাই,
অনম্বরে আমি যখন উঠিয়া বসি,
মর্ত্যলোকের সর্ব মুখে পাই শোভা হাসি।
আমারই দেখে প্রণয় জাগে মানব মনে,
শুভ দিন পাই খুজে আমারই কারণে।”
সবিতা তুলিয়া শিরঃ নিশাকররে বলে,
“আমি রাহিত্যে মর্ত্যলোক রহিবে আধার তলে।
আমি যদি না চাহি ধরার পানে,
এ ধরা শুন্য হবে মানব প্রাণে।
আমারই অনুগ্রহে তুই করিস বড়াই,
আমি বিনা তোর জীবনের মূল্য কভূ নাই।”
শুনিয়া নিশাকর বলে,“শোন ভাই-
বড়াই আমার নই, তোমার বড়াই,
আমাদের করেছে সৃজন মানব তরে
মিছা কেন তর্ক এত সময় ধরে।
সে যদি আমারে করিত তোমায়,
কোথায় রহিত তোমা মহামূল্য বড়াই?”
সবিতা হাসিয়া কই,“বুঝেছো এবার,
ধরার বুকে রয়েছে কার বেশী অধিকার,
সৃজন করেছে মোরে তোমার উপরে,
বাড়াইয়ে বলিনা কিছু বলি অধিকারে ॥”

(২২ ফাল্গুন ১৪০৫/কালিশংকর পুর)

মন্তব্য করুন